ময়মনসিংহে খাবারে বিষক্রিয়ায় চিকিৎসকের মৃত্যু

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিময়মনসিংহ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ৯:৫৭ পূর্বাহ্ণ, ১৬/০৪/২০২০

ময়মনসিংহে জ্যোতি জয়ন্ত চক্রবর্তী (৪৪) নামে এক চিকিৎসক খাবারে বিষক্রিয়ায় মারা গেছেন। কিন্তু তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন বলে সোশাল মিডিয়ায় খবর ছড়িয়ে পড়ে। সেই খবরকে বিভ্রান্তিকর বলে উড়িয়ে দিয়েছেন স্থানীয় চিকিৎসা কর্মকর্তারা।

ওই চিকিৎসকের মৃত্যুর কারণ খাবারে বিষক্রিয়া বলে তার সহকর্মী ও চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজের চিকিৎসা কেন্দ্রে কর্মরত ছিলেন জ্যোতি।

বুধবার (১৫ এপ্রিল) ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এদিনই সিলেটের এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়। এরপর জ্যোতির মৃত্যু করোনাভাইরাসে বলে সোশাল মিডিয়ায় খবর ছড়ায়।

আনন্দ মোহন কলেজের উপাধ্যক্ষ নুরুল আফসারী বলেন, “মঙ্গলবার চিকিৎসক জ্যোতি জয়ন্তর ফুড পয়জনিং হলে পরিবারের লোকজন তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়েছে।

তিনি বলেন, “মৃত্যুর কারণ জানতে চিকিৎসকদের সাথে কথা বলেছিলাম। তারা জানিয়েছেন, ফুড পয়জনিং এর ফলে উচ্চ রক্তচাপের কারণে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।”

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক লক্ষী নারায়ণ মজুমদার বলেন, “চিকিৎসক জ্যোতি জয়ন্ত চক্রবর্তীর ফুড পয়জনিংয়ের ফলে উচ্চ রক্তচাপ জনিত কারণেই মারা গেছেন। তার মৃত্যু সনদেও তাই উল্লেখ করেছি।” সূত্র বিডি নিউজ

Nagad

সারাদিন/১৬এপ্রিল/টিআর