কম্পিউটার বিজ্ঞান ও শিক্ষা সপ্তাহ উদযাপন শুরু

কেবল প্রোগ্রামার হওয়ার জন্য নয়, যে কোন সমস্যা সমাধানের জন্যও প্রোগ্রামিং দক্ষতা দরকারী। তাছাড়া বিশ্ব্যব্যাপী প্রযুক্তি নির্ভর পেশা ও কাজের পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। এই দ্বিবিধ কারনে শিক্ষার্থীদের শুরু থেকেই কম্পিউটার প্রোগ্রামিং চর্চ্চা করা প্রয়োজন। কম্পিউটার বিজ্ঞান ও শিক্ষা সপ্তাহের আওতায় শিক্ষার্থীদের প্রোগ্রামিং-এ আকৃষ্ট করার জন্য আন্তর্জাতিক আয়োজন “আওয়ার অব কোড”-এর বাঙলাদেশ পর্বের শুরুতে এই আহবান জানিয়েছেন বিডিওএসএনের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান।

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) সকালে বিডিওএসএনের উদ্যোগে মাকসুদুল আলম বিজ্ঞানাগারে চলতি বছরের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ৯ থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই সপ্তাহের প্রতিদিন ম্যাসল্যাবে একঘন্টার প্রোগ্রামিং কর্মসূচি পালিত হবে। সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৫টা পর্যন্ত যে কেউ এই আয়োজনে অংশ নিতে পারবে। অংশগ্রহণকারীরা কোড ডট অর্গের প্রতিষ্ঠাতা হাদি পার্বতীর স্বাকষরিত ডিজিটাল সার্টিফিকেট লাভ করবে।

এ সংক্রান্ত এক ভিডিও বার্তায় মুনির হাসান সবাইকে নিজি নিজ উদ্যোগে এই আয়োজনে শরীক হতে আহবান জানান। তিনিও এও জানান বাংলাদেশের হাইস্কুলের শিক্ষার্থীদের জন্য সবচেয়ে বড় আয়োজন ন্যাশনাল হাইস্কুল প্রোগ্রামিঙ কনটেস্ট, মেযেদের জন্য ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কনটেস্টের সূচনা হয়েছে এই সপ্তাহে। এ বছরও প্রযুক্তি খাতে মেয়েদের অংশগ্রহণ এডা লাভলেস সেরিব্রেশন নামে জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে উদযাপিত হবে বলে তিনি জানান।
ম্যাসল্যাবের শিক্ষার্থীদের আওয়ার অব কোড-এর নির্ধারিত কর্মসূচীতে ড্যান্সিং এনিমেশন তরিতে সহায়তা করছেন মোশাররফ হোসেন ও হুমায়ূন কবীর।

বিডিওএসএন সূত্রে জানা গেছে এই সপ্তাহ উপলক্ষে ১০ ডিসেম্বর থেকে স্কুল পড়ুয়াদের জন্য ওয়ার্ডপ্রেস ভিত্তিক ওয়বসাইট বানানোর, ১৩ তারিখ থেকে গণিতের নানাবিধ কোশল এবং ১৫ তারিখে একটি ডিজাইন কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে।
উল্লেখ্য যে, ‘কম্পিউটার সাইন্স এডুকেশন উইক’ উপলক্ষে বিশ্বব্যাপী আয়োজিত কম্পিউটার প্রোগ্রামিং বিষয়ক আয়োজন “আওয়ার অব কোড (Hour of Code)’ বাংলাদেশেও পালন করছে বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক ও ইন্টারনেট সোসাইটি বাংলাদেশ চ্যাপ্টার।

সারাদিন/৯ডিসেম্বর/