নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে রোববার মামলা করছেন তাবিথ

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৪:২২ অপরাহ্ণ, ০১/০৩/২০২০

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে মামলা করতে যাচ্ছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে ভোটের সামগ্রিক ফলাফল বাতিলের দাবি জানিয়ে ঢাকা সিটি উত্তরের বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল রোববার (১ মার্চ) বিকাল ৩টায় ঢাকা জজ কোর্টের নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করবেন। আর এই তথ্য বিএনপি সূত্রে জানা গেছে।

সিটি নির্বাচনের বিষয়ে অভিযোগ জানিয়ে সম্প্রতি উত্তরের মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘১ ফেব্রুয়ারি নির্বাচনের নামে প্রহসন হয়েছে। ভোটাররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেননি। কেন্দ্র দখল করে ক্ষমতাসীনরা ইচ্ছামতো তাদের প্রার্থীর পক্ষে ভোট দিয়েছেন। ইভিএমেও কারচুপি করেছে। নির্বাচনের কারচুপির যাবতীয় তথ্য আমরা সংগ্রহ করেছি। আমরা সবকিছু প্রস্তুত করেছি। রোববার নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করা হবে।’

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে অনিয়ম নিয়ে আমাদের কাছে যেসব তথ্য-প্রমাণ রয়েছে তা আদালতে উপস্থাপন করা হবে।’

নির্বাচনী আইন অনুযায়ী ফলাফলের গেজেট প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্যে ‘নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে’ সংক্ষুব্ধ প্রার্থী বা তার মনোনীত ব্যক্তিকে আবেদন করতে হবে। ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ভোট অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম উত্তরে ও ফজলে নূর তাপস দক্ষিণের মেয়র নির্বাচিত হন।

নির্বাচন বিষয়ে কোনো অভিযোগ থাকলে নিয়ম অনুযায়ী আগামীকাল ২ মার্চের মধ্যে তাদের ট্রাইব্যুনালে মামলা করতে হবে। মামলার পর পরবর্তী ১৮০ দিনের মধ্যে তা নিষ্পত্তি করবেন আদালত। সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি রায়ে খুশি না হলে ৩০ দিনের মধ্যে ‘নির্বাচনী আপিল ট্রাইব্যুনালে’ যেতে পারবেন তিনি। নির্বাচনী আপিল ট্রাইব্যুনাল ১২০ দিনের মধ্যে আপিলটি নিষ্পত্তি করবেন।

সারাদিন/১মার্চ/টিআর