বাংলা ভাষা বাঙালির রক্তের সাথে মিশে আছে: মোস্তাফা জব্বার

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেছেন, বাংলা ভাষা বাঙালির রক্তের সাথে, মেধামননের সাথে এবং মায়ের মুখের সাথে মিশে আছে । তাই বিদেশি শক্তি যখন যারাই এদেশ শাসন করেছে তারা তাদের ভাষা এদেশ চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছে কিন্তু পারে নাই বা তারা বাঙালীর মায়ের মুখের বাংলা ভাষাকে কেড়ে নিতে সক্ষম হয়নি।

মন্ত্রী শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার জিপিও অডিটরিয়ামে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকেট অবমুক্তকরন ও আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, রক্তের বিনিময়ে মায়ের ভাষা বাংলাকে রাষ্ট্রভাষায় প্রতিষ্ঠা, এভাষার মর্যাদা রক্ষা ও বাংলা ভাষা ভিত্তিক বাংলাদেশ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার নজির বিশ্বে আর নাই। তিনি বলেন, যন্ত্রে বাংলা লিখার সীমাবদ্ধতা নাই। প্রযুক্তির সুযোগ যথাযথ কাজে লাগানোর বিকল্প নেই।

পৃথিবীতে বিদ্যমান ভাষা সাম্রাজ্যবাদকে একটি ভয়ঙ্কর বিষয় উল্লেখ করে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, একাত্তরের আগে এ ভূখন্ড পাকিস্তানি, ইংরেজ, মোগল এবং এরও আগে বাইরের শক্তি শাসন করেছে। তারা প্রত্যেকেই তাদের ভাষা চাপানোর চেষ্টা করেছে কিন্তু পারেনি। তিনি উচ্চতর শিক্ষায় এবং উচ্চ আদালতে বাংলা ভাষা প্রবেশাধিকারের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

ভাষা আন্দোলন থেকে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পর্যন্ত বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধু অবদান তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ হতো না এবং বাংলা রাষ্ট্র ভাষা হতো না। বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অব্যাহত প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন।

মন্ত্রী বলেন বাংলা ভাষার ওপরে পাকিস্তানিরা প্রথমে আক্রমন করে এর সূত্র ধরেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাঙালী জাতিসত্বার বাংলাদেশ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করেন। পিতার পথ ধরে জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলায় ভাষণ দেন। জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে বাংলাকে প্রতিষ্ঠিত করতে অব্যাহত প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ডাক অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক মোঃ হারুনুর রশীদের সভাপতিত্বে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মহিবুর রহমান বক্তৃতা করেন।

স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত
ডাক অধিদপ্তর মহান ভাষা শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০২০ উপলক্ষে দশ টাকা মুল্যমানের একটি স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ করেছে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এই স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করেন। এই উপলক্ষে একটি বিশেষ সিলমোহর ব্যবহার করা হয়েছে এবং পাঁচ টাকা মূল্যমানের একটি ডাটা কার্ডও প্রকাশ করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পন
এর আগে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর নেতৃত্বে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং বিটিআরসিসহ অধীনস্থ সংস্থাসমূহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা শহিদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে পুস্প স্তবক অর্পন করে।