দুই মৌসুমের জন্য নিষিদ্ধ ম্যানচেস্টার সিটি

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২৬ পূর্বাহ্ণ, ১৫/০২/২০২০

আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ থেকে ম্যানচেস্টার সিটিকে পরবর্তী দুই মৌসুমের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একই সঙ্গে ৩ কোটি ইউরো জরিমানাও করা হয়েছে ক্লাবটিকে।
ইউনিয়ন অব ইউরোপীয়ান ফুটবল এসোসিয়েশন (উয়েফা) এ তথ্য জানায়।

উয়েফা জানায়, দুইটি ধারা ভঙ্গের কারণে নেওয়া হয়েছে এমন সিদ্ধান্ত। ক্লাবটি আর্থিক স্বচ্ছতার ধারা ভেঙেছে। একই সঙ্গে ইউরোপিয়ান লিগের (উয়েফা) গর্ভনিং বডির প্রতি অনাস্থা জ্ঞাপন করেছে তারা।

তবে এই দুই বছরের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপীল করার সুযোগ থাকছে ম্যানচেস্টার সিটির।

উয়েফা তাদের তদন্ত প্রতিবেদনে বলেছে, ২০১২ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত ম্যানসিটি উয়েফার আর্থিক স্বচ্ছতার ধারা ভেঙেছে। তারা ক্লাবের আয়ের ঠিকঠাক হিসেব দেয়নি। তবে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে উয়েফার প্রধান তদন্ত কর্মকর্তা অনুসন্ধানের কাজ শুরুর আগেই ম্যানসিটিকে ‘দোষী’ বলে উল্লেখ করেন। এজন্য ম্যানসিটি শাস্তি পাবে বলেও জানান তিনি। ম্যানসিটি তাই মনে করছে সঠিক তদন্ত ছাড়াই পূর্বপরিকল্পনা থেকে তাদের শাস্তি দেওয়া হচ্ছে।

উয়েফার এমন সিদ্ধান্তে বিস্মিত হয়নি বলে জানিয়েছে ক্লাবটি। নিজেদের ওয়েবসাইট ও টুইটারে দেওয়া এক বিবৃতিতে ম্যানচেস্টার সিটি ক্লাব কর্তৃপক্ষ জানায়, ক্লাব সবসময়ই একটি স্বাধীন গর্ভনিং কমিটির কথা বলে আসছে। যারা অকাট্য প্রমাণের ভিত্তিতে ক্লাব যে অবস্থান নিয়েছে পক্ষপাত না করে সেটি বিবেচনা করে দেখেবে।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের এই দলটি বিবৃতিতে বলেছে, বিষয়টি খুব সহজ। উয়েফা ক্লাবের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। তারাই মামলা চালিয়েছে। বিচারও করেছে তারা। ক্লাব যতদ্রুত সম্ভব একটি স্বাধীন বিচারের দাবি জানাচ্ছে।

সারাদিন/১৫ ফেব্রুয়ারি/ আরটিএস