দিয়া-রাজীবের মৃত্যুতে চালকসহ তিনজনকে যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদকনিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৮:১৬ অপরাহ্ণ, ০১/১২/২০১৯

রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে আলোচিত বাস দূর্ঘটনা জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থী দিয়া-রাজীবের মৃত্যুর ঘটনায় দুই বাসের চালকসহ তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে জাবালে নূর পরিবহনের মালিক জাহাঙ্গীর আলম ও বাসচালকের সহকারী এনায়েত হোসেনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।

রবিবার (০১ ডিসেম্বর) বিকেল তিনটার দিকে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এ রায় ঘোষণা করেন। রায়ে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ছয় মাসের করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- জাবালে নূর পরিবহনের দুই চালক মাসুম বিল্লাহ ও জুবায়ের সুমন এবং এক বাসের সহকারী কাজী আসাদ। এর মধ্যে কাজী আসাদ পলাতক থাকলেও বাকি দুইজন কারাগারে রয়েছেন।

দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় গত ৭ অক্টোবর উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের মাধ্যমে বিচারকাজ শেষ হয়। ওইদিনই এ মামলার রায়ের জন্য ১ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেন আদালত। রাজীব ও দিয়া এ মামলার মোট আসামি ছিলেন ছয়জন। এর মধ্যে জামিনে থাকা জাবালে নূর পরিবহনের আরেক মালিক শাহাদাত হোসেনের মামলা উচ্চ আদালতের নির্দেশে স্থগিত আছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২৫শে অক্টোবর আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জগঠন করা হয়। এর আগে গত ৬ সেপ্টেম্বর আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে গোয়েন্দা পুলিশ। ২০১৮ সালের ২৯শে জুলাই জাবালে নূর পরিবহনের দুইটি গাড়ি বেপরোয়া ভাবে চালিয়ে একটি বাস রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের কয়েকজন ছাত্র ছাত্রীর উপর তুলে দিলে দিয়া খানম মিম ও আব্দুল করিম রাজীব নিহত হয়। এর প্রতিবাদে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে নামে সারাদেশের শিক্ষার্থীরা। স্থবির হয়ে পড়ে রাজধানীর যান চলাচল।

সারাদিন/১ডিসেম্বর/আর