দেশে রোহিঙ্গাদের ১১ খাতে চলতি বছর দরকার ৮৮ কোটি ডলার

বিশেষ প্রতিবেদকবিশেষ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১৮ অপরাহ্ণ, ১৪/০২/২০২০

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহ্ঙ্গিাদের সার্বিক চাহিদা মেটাতে চতুর্থবারের মত জাতিসংঘ যৌথ পরিকল্পনা প্রকাশ করতে চলেছে চলতি মাসেই। এ বছর পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা ও কক্সবাজারের স্থানীয়দের খাদ্য নিরাপত্তা, আশ্রয়, পুষ্টি, পরিচ্ছন্নতাসহ ১১ খাতে ৮৭ কোটি ৭০ লাখ ডলার ধরা হয়েছে। জাতিসংঘ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর দেশে এ পর্যন্ত নিবন্ধিত রোহিঙ্গার সংখ্যা প্রায় ১৩ লাখ। জাতিসংঘের হিসাব বলছে, চলতি বছর রোহিঙ্গাদের সার্বিক চাহিদা মেটাতে দরকার হবে ৮৭ কোটি ৭০ লাখ ডলার। যাতে এবারও সবচেয়ে বেশি ২৫ কোটি ৪৬ লাখ ডলার বরাদ্দ রাখা হয়েছে খাদ্য নিরাপত্তায়।

পানি, পয়োঃনিষ্কাশন ও পরিচ্ছন্নতায় ১১ কোটি ৫৫ লাখ, আশ্রয়ণসহ সংশ্লিষ্ট প্রয়োজনে ১১ কোটি ১২ লাখ, ব্যবস্থাপনায় ৯ কোটি ৫৩ লাখ, নিরাপত্তায় ৮ কোটি ৮০ লাখ, স্বাস্থ্যখাতে ৮ কোটি ৫৬ লাখ, শিক্ষায় ৬ কোটি ৯০ লাখ, পুষ্টিতে ৩ কোটি ৯৯ লাখ, যোগাযোগ ব্যবস্থাপনায় ১ কোটি, সমন্বয়ে ৩ কোটি ৬০ লাখ এবং অন্যান্য খাতসহ নানান প্রয়োজনে ৩ কোটি ৯০ লাখ ডলার রাখা হয়েছে।

জাতিসংঘ বলছে, এতে শুধু রোহিঙ্গারাই নয় ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয় জনগোষ্ঠিও সুবিধা পাবেন। গত জানুয়ারি থেকে আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত খরচের এই খতিয়ান, আগামী সপ্তাহেই অনুমোদন দেবে জাতিসংঘ।

সারাদিন/১৪ফেব্রুয়ারি/টিআর