জুয়া ও ক্যাসিনো বন্ধে আইনে সাজার পরিমাণ বাড়ানো উচিত: হাইকোর্ট

জেষ্ঠ্য প্রতিবেদকজেষ্ঠ্য প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৫:০৪ অপরাহ্ণ, ১০/০২/২০২০

জুয়া-ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানকে সাধুবাদ জানিয়েছে হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, বর্তমান সরকার ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে কঠোর অভিযান পরিচালনা করছেন। আমাদের কাছে প্রতীয়মান হয়, এই অভিযানের মূখ্য উদ্দেশ্য হচ্ছে ক্যাসিনো ও জুয়াকে খেলাকে নিরুৎসাহিত করা। একইসঙ্গে জুয়া ও ক্যাসিনো বন্ধে আইনে সাজার পরিমাণ বাড়ানো উচিত। বলেও মন্তব্য করেন আদালত।

সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদারের হাইকোর্ট বেঞ্চ জুয়া খেলা নিষিদ্ধ করে রায় ঘোষণার সময় এ মন্তব্য করেন।

আদালত পর্যক্ষণে বলেন, ১৮৬৭ সালের জুয়া আইনে ঢাকা মহানগরীর বাইরে জুয়া খেলার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। কিন্তু এই আইনে সাজার পরিমাণ খুবই নগন্য। মাত্র দুইশ টাকা জরিমানা ও তিন মাসের কারাদণ্ড। এরপরে ঢাকা মহানগরীর ভিতরে জুয়া খেললে এই আইনে ব্যবস্থা নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

সংবিধানের ২৭ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী জুয়া আইন বৈষম্যমূলক। কারণ সংবিধানেই বলা হয়েছে আইনের দৃষ্টিতে সকলেই সমান। আদালত বলেন, অপরাধ অপরাধই। এখানে ধনী-গরিবের বৈষম্যের সুযোগ নেই।

এই পর্যবেক্ষণ দিয়ে হাইকোর্ট ঢাকার ১৩ অভিজাত ক্লাবসহ সারাদেশের জুয়া খেলা বন্ধ ঘোষণা করে রায় দেন। একইসঙ্গে এইসব ক্লাবসহ দেশের কোথাও জুয়া খেলার কোন উপকরণ পাওয়া গেলে তা তাৎক্ষণিক জব্দের নির্দেশ দেন আদালত।

সারাদিন/১০ফেব্রুয়ারি/টিআর