বার্সেলোনার জয়ে মেসির অ্যাসিস্টের হ্যাটট্রিক

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:১৯ অপরাহ্ণ, ১০/০২/২০২০

রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে নিজে গোল না পেলেও সতীর্থদের তিনটি গোলে অবদান রাখলেন লিওনেল মেসি। দুই দফা পিছিয়ে পড়ার পর ঘুরে দাঁড়িয়ে রিয়াল বেতিসকে হারাল বার্সেলোনা। তবে বার্সার সঙ্গে ব্যবধান আবারও ৬ পয়েন্টে নিল রিয়ালরা।

প্রতিপক্ষের মাঠে রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে লা লিগার ম্যাচে ৩-২ গোলে জিতেছে কাতালান ক্লাবটি। ম্যাচের শেষ দিকে দুই দলই ১০ জনের দলে পরিণত হয়েছিল। এ জয়ে শীর্ষে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে ব্যবধান ৩ পয়েন্টে নামিয়ে এনেছে কিকে সেতিয়েনের দল।

ওসাসুনাকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেওয়া রিয়াল ২৩ ম্যাচে ৫২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে। ৪৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে বার্সেলোনা। ২০১৯ সালের আগস্টে লিগের প্রথম পর্বের ম্যাচে নিজেদের মাঠ কাম্প নউয়ে বেতিসকে ৫-২ গোলে হারিয়েছিল বার্সেলোনা।

আগের ম্যাচে আথলেতিক বিলবাওয়ের মাঠে হেরে কোপা দেল রে থেকে বিদায় নেওয়া বার্সেলোনা ষষ্ঠ মিনিটে পিছিয়ে পড়ে সের্হিও কানালেসের সফল স্পট কিকে।

ডি-বক্সের ভেতরে ক্লেমোঁ লংলের হাতে বল লাগলে শুরুতে পেনাল্টির বাঁশি বাজাননি রেফারি। পরে ভিএআর দেখে স্পট কিকের সিদ্ধান্ত দেন তিনি।

বেতিসের এগিয়ে যাওয়ার আনন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। নবম মিনিটে লিওনেল মেসির বাড়ানো বল অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে বুক দিয়ে নামিয়ে দারুণ শটে লক্ষ্যভেদ করেন ফ্রেংকি ডি ইয়ং।

২৩তম মিনিটে ভালো একটি সুযোগ নষ্ট করেন মেসি। অঁতোয়ান গ্রিজমানের বাড়ানো বল ডি-বক্সে ঢুকে নিয়ন্ত্রণে নিলেও দুর্বল শট নেন এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

চার মিনিট পর আর্তুরো ভিদাল মাঝমাঠে বল হারানোর পর পেয়ে যান নাবিল ফেকির। ডি-বক্সের বাইরে থেকে নিখুঁত কোনাকুনি শটে দূরের পোস্ট দিয়ে লক্ষ্যভেদ করে বেতিসকে ফের এগিয়ে নেন ২৬ বছর বয়সী এই ফরাসি ফরোয়ার্ড।

প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে আরেক দফা সমতার স্বস্তি ফেরে বার্সেলোনার তাঁবুতে। মেসির লম্বা ফ্রি কিকের পর ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পেয়ে যান সের্হিও বুসকেতস। বাঁ পায়ের শটে জাল খুঁজে নেন এই স্প্যানিশ ডিফেন্ডার।

৬৬তম মিনিটে জর্দি আলবার কাছ থেকে ফিরতি পাস পেয়ে মেসির নেওয়া শট দূরের পোস্ট দিয়ে অল্পের জন্য বাইরে দিয়ে যায়। ছয় মিনিট পর মেসির ক্রসে লংলের হেড জাল খুঁজে পেলে ম্যাচে প্রথমবারের মতো এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। মেসিও পূরণ করেন অ্যাসিস্টের হ্যাটট্রিক!

৭৬তম মিনিটে বেতিসের ফেকির ও তিন মিনিট পর বার্সেলোনার লংলে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড পেলে দুইটি দলই পরিণত হয় ১০ জনের দলে।

সারাদিন/১০ফেব্রুয়ারি/টিআর