মরণঘাতী করোনাভাইরাসে সিঙ্গাপুরে প্রবাসী বাংলাদেশি আক্রান্ত

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৫২ পূর্বাহ্ণ, ১০/০২/২০২০

চীনের পাশাপাশি এই করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে ২৫টি দেশে। তাতে দুই শত ৮৮ জনের মতো মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। আর সিঙ্গাপুরে এ পর্যন্ত ৪৩ জন নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, যাদের মধ্যে একজন বাংলাদেশিও রয়েছেন বলে দেশটির সরকার জানিয়েছে।

সিঙ্গাপুরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ৩৯ বছর বয়সী ওই বাংলাদেশি ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে সেখানে বসবাস করে আসছিলেন। তাকে ন্যাশনাল সেন্টার ফর ইনফেকশাস ডিজিজেসে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

চীনের উহান থেকে নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার পর এই প্রথম কোনো বাংলাদেশির প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার তথ্য পাওয়া গেল।

বাংলাদেশ সরকার ইতোমধ্যে উহান থেকে ৩১২ জন বাংলাদেশিকে দেশে ফিরিয়ে এনেছে। তবে দেশে এ পর্যন্ত কারও মধ্যে অথবা চীনে থাকা বাকি বাংলাদেশিদের কারও এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার তথ্য পাওয়া যায়নি।

সিঙ্গাপুরে আক্রান্ত ওই বাংলাদেশির বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া উইংয়ের মহাপরিচালক এম জে এইচ জাবেদ বলেন, রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টার দিকে হাই কমিশনারের সঙ্গে কথা বলেছি, সেদিক থেকে তথ্যটি এখনো পাইনি। তবে আমরা এটা নিয়ে ফলোআপ করব।

সিঙ্গাপুরভিত্তিক সংবাদমাধ্যম স্ট্রেইটস টাইমস জানিয়েছে, ওই বাংলাদেশি সাম্প্রতিক সময়ে চীনে যাননি। ফলে সিঙ্গাপুরেই অন্য কারও মাধ্যমে তার দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সিঙ্গাপুরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, ১ ফেব্রুয়ারি ওই বাংলাদেশির মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রণের উপসর্গ দেখা দেয়। ৩ ফেব্রুয়ারি তিনি ডাক্তারের কাছে যান। এরপর ৫ ফেব্রুয়ারি যান চেঙ্গি জেনারেল হাসপাতালে।

প্রাথমিক পরীক্ষার পর ওই বাংলাদেশিকে সেখানে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করে নেওয়া হয়। শনিবার ৮ (ফেব্রুয়ারি) বিকালে পরীক্ষার ফলাফলে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিশ্চিত হওয়ার পর তাকে নেওয়া হয় আইসোলেশন ইউনিটে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী চীনের বাইরে এ পর্যন্ত ২৫টি দেশে ২৮৮ জনের মধ্যে নতুন করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। এর মধ্যে সিঙ্গাপুরেই আক্রান্তের সংখ্যা সর্বোচ্চ।

পূর্ব এশিয়ার দ্বীপ দেশ সিঙ্গাপুরে সব মিলিয়ে ১ লাখ ৩০ হাজার বাংলাদেশি রয়েছেন বলে ধারণা করা হয়। তাদের নতুন এ করোনাভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে এবং প্রয়োজনে হাই কমিশনে যোগাযোগ করার পরামর্শ দিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা এম জে এইচ জাবেদ।

চীনের দেশটির জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে, রোববার পর্যন্ত চীনের মূল ভূখণ্ডেই নভেল করোনাভাইরাসে ৯১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া হংকং ও ফিলিপিন্সে এর আগে মারা গেছেন আরও দুই চীনা নাগরিক। সব মিলিয়ে নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭ হাজার পেরিয়ে গেছে।

সারাদিন/১০ফেব্রুয়ারি/টিআর