রিয়াল মাদ্রিদের বিদায়

সারাদিন ডেস্কসারাদিন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৪৮ পূর্বাহ্ণ, ০৭/০২/২০২০

প্রথমার্ধে এক গোল খেলো রিয়াল মাদ্রিদ। আর বিরতি থেকে ফিরেই দ্বিতীয়ার্ধে রিয়ালরা আরও তিনটি গোল হজমির খাওয়ার মতো হজম করল। শেষ দিকে দুইটি গোল শোধ করেছে অবশ্যই। তবে আশার আলো জাগাতে পারেনি পারেনি জিনেদিন জিদানের দল। তাদেরকে হারিয়ে কোপা দেল রের সেমি-ফাইনালে উঠেছে রিয়াল সোসিয়েদাদ।

বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে ৪-৩ গোলে হারে রিয়াল। সব প্রতিযোগিতা মিলে ২২ ম্যাচ অপরাজিত থাকার পর হারের মুখ দেখল স্পেনের সফলতম ক্লাবটি। ২০১৯ সালের অক্টোবরে লা লিগায় রিয়াল মায়োর্কার কাছে ১-০ গোলে হারের পর থেকে অপরাজিত ছিল তারা।

স্পেনের দ্বিতীয় সেরা প্রতিযোগিতায় শিরোপা খরা আরও লম্বা হলো রিয়ালের। ২০১৩-১৪ মৌসুমে এই প্রতিযোগিতায় নিজেদের ১৯তম ও সবশেষ শিরোপা জিতেছিল দলটি।

২২তম মিনিটে রিয়ালের প্রথম গোল হজমে দায় আছে একাদশে সুযোগ পাওয়া গোলরক্ষক আলফুঁস আরিওলার। পাল্টা আক্রমণে আলেকসান্দার ইসাকের শট ফেরালেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি ফরাসি এই ফুটবলার। মার্তিন ওদেগার্দের ফিরতি শটে তেমন কোনো হুমকি ছিল না। কিন্তু গোলরক্ষকের পায়ে লেগে বল জালে জড়ায়।

বিরতির পরপরই রিয়ালের জালে আবার বল জড়ান ইসাক। তবে ভিএআরের সাহায্য নিয়ে অফ-সাইডের বাঁশি বাজান রেফারি।

৫৪তম মিনিটে আর ইসাককে রুখতে পারেনি রিয়াল। দুর্দান্ত এক ভলিতে জাল খুঁজে নেন তিনি। দুই মিনিট পর প্রতিপক্ষ রক্ষণের ভুলের সুযোগে আরও এক গোল করে দলকে সুবিধাজনক জায়গায় পৌঁছে দেন সুইডেনের এই ফরোয়ার্ড।

৫৯তম মিনিটে ব্যবধান কমান মার্সেলো। ব্রাহিম দিয়াসের পাস ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়ে কাছের পোস্ট দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ব্রাজিলের এই ডিফেন্ডার।

১০ মিনিট পর ইসাকের ডিফেন্স চেরা পাস পেয়ে বাঁ পায়ের শটে আবার ব্যবধান বাড়ান মিকেল মেরিনো। ৭৯তম মিনিটে সোসিয়াদের জালে বল পাঠান ভিনিসিউস জুনিয়র। তবে ভিএআরের সাহায্য নিয়ে অফ-সাইডের বাঁশি বাজান রেফারি। দুই মিনিট পর ভিনিসিউসের পাস থেকে ব্যবধান কমান বদলি নামা রদ্রিগো।

যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে করিম বেনজেমার পাস থেকে হেডে লক্ষ্যভেদ করে নাটকীয়তার ইঙ্গিত দেন নাচো ফের্নান্দেস।

দুই মিনিট পর আন্দোনি লাল কার্ড দেখলে ১০ জনের দলে পরিণত হয় সোসিয়েদাদ। শেষ সময়ে মরিয়া চেষ্টা করেও সমতাসূচক গোলের দেখা পায়নি স্বাগতিকরা।

লা লিগায় চলতি মৌসুমে ২২ রাউন্ডে সবচেয়ে কম মাত্র ১৩টি গোল খেয়ে জমাট রক্ষণের পরিচয় দিয়ে চলেছে রিয়াল। সেই তারাই কোপা দেল রের ইতিহাসে মাত্র দুবার চ্যাম্পিয়ন হওয়া সোসিয়েদাদের বিপক্ষে হজম করল চার গোল।

এই প্রতিযোগিতায় সবশেষ ১৯৮৭ সালে নিজেদের দ্বিতীয় শিরোপাটি জিতেছিল সোসিয়েদাদ।

এর আগে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ভালেন্সিয়াকে হারিয়ে শেষ চারে ওঠে গ্রানাদা। সেমি-ফাইনালে ওঠা আরেক দল মিরান্দেস; লা লিগার আরেক দল ভিয়ারিয়ালকে হারায় দ্বিতীয় সারির ক্লাবটি।

সারাদিন/৭ফেব্রুয়ারি/টিআর